ইসলাম Archives - Proshikkhon

Posts Tagged "ইসলাম"

2May2022

عيد | Sunnah and Mustahab of Eid day

– মোঃ মাহফুযূর রহমান

ঈদের দিন পালনীয় সুন্নাহ ও মুস্তাহাব

মুসলমানদের জন্য প্রধান ধর্মীয় উৎসব হচ্ছে ঈদুল ফিতর (রমাদানের ঈদ, ১লা শাওয়াল এই ঈদ পালন করা হয়) ও ঈদুল আযহা (কুরবানীর ঈদ, ১০ই জিলহজ্জ এই ঈদ পালন করা হয়)। সারা দুনিয়ার মুসলমানদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও বিশেষ দিন হলো ঈদের দিন। হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) ঈদের দিন বেশ কিছু কাজ করেছেন যা মুসলমানদের জন্য অনুকরণীয় এবং অনুসরণীয়। আমরা অনেকেই জানি এবিষয়ে, আবার অনেকেই ভুলে যাই। তাই আমরা আরেকবার জেনে নিব ঈদের দিন পালনীয় সুন্নাত ও মুস্তাহাব সমূহ।

দুই ঈদের রাত্রের ফযীলত

[…]
1May2022

عيد | Masala masail of Eid prayers

– মোঃ মাহফুযূর রহমান

ঈদ (عيد) একটি আরবী শব্দ। “লিসানুল আরব” অনুযায়ী শব্দটির অর্থ হলো ফিরে আসা, প্রত্যাবর্তন করা, বারবার আসা ইত্যাদি। আর ঈদুল ফিতর (আরবি: عيد الفطر অর্থাৎ “সাওম বা রোজা ভাঙার দিবস”)।

মুসলমানদের জীবনে চান্দ্র বছরের নির্দিষ্ট তারিখে প্রতিবছরই দুটি উৎসবের দিন ফিরে আসে। তাই দিন দুটিকে ঈদ বলা হয়। আর ফিতর শব্দটিও আরবী। শব্দটির অর্থ হলো ভেঙ্গে ফেলা, বিদীর্ণ করা ইত্যাদি।

ইসলামী নিয়ম অনুযায়ী মুসলমানগন রমজানের চাঁদ দেখার সাথে সাথে রোযা রাখা শুরু করে এবং শাওয়ালের চাঁদ দেখার সাথে সাথে রোযা ভেঙ্গে দেয়। সে কারণে এটিকে ঈদুল ফিতর তথা রোজা ভাঙ্গার দিবস বা আনন্দ বলা হয়।

পবিত্র ঈদুল ফিতরের সূচনা

হযরত আনাস (রাঃ) বলেন, হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মদীনায় হিজরত করে আসার পর দেখলে মদিনাবাসী দুদিন খুব আনন্দ উৎসব করছ । তিনি তাদের জিজ্ঞাসা করলেন এ দিনে তোমরা কি করো? তারা বললেন আমরা জাহিলিয়াতের যুগে এ দুটো দিন খেলাধুলা, আমোদ ফুর্তি করতাম। হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) বললেন, আল্লাহ্ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা তোমাদের এ দুটো দিনের পরিবর্তে অন্য দুটি‌ দিন প্রদান করেছেন।‌ তার মধ্যে একটি হল ঈদুল আযহার দিন অপরটি হল ঈদুল ফিতরের দিন। (সুনানে আবু দাউদ, হাদীস নং-১১৩৬)

ঈদের নামাজের স্থান

[…]
16Apr2022

صلاة| Ahkam and Arkan of Salah

– মোঃ মাহফুযূর রহমান

সালাতের ফরয

সালাতের ফরজ হল ১৩ টি যেগুলোর কোন একটি ইচ্ছাকৃতভাবে বাদ দিলে সালাত / নামাজ আদায় শুদ্ধ হবে না। অর্থাৎ সালাত শুরুর পূর্বে ৭টি আহকাম (أحكام) আর সালাতের মধ্যে ৬টি আরকান (اركان) রয়েছে সেগুলোকে সালাত বা নামাজের ফরজ বলা হয়।

সালাতের আহকাম ও আরকান কী?

সালাত শুরুর পূর্বের ফরজসমূহকে আহকাম অন্যদিকে যে ফরজ কাজগুলো সালাতের মধ্যে আদায় করতে হয়, সেগুলোকে সালাতের আরকান বলা হয়। প্রথমে আমরা সালাত / নামাজের আহকাম সম্পর্কে আলোচনা করা হল:

ক) সালাতের আহকামসমূহ (أحكام):

আহকাম শব্দটি বহুবচন, একবচনে হুকুম। যে ফরজ কাজগুলো নামাজ শুরু করার আগেই করতে হয়, সেগুলোকে সালাতের আহকাম বলা হয়। সালাতের আহকাম মোট সাতটি। নিম্নে সালাত / নামাজের আহকামসূহের সংক্ষিপ্ত বর্ণনা করা হল:

১) শরীর পবিত্র হওয়া:

সালাত নামাজ আদায় করার জন্য শরীর পাক-পবিত্র হতে হবে। গোসল, অযু বা তায়াম্মুমের মাধ্যমে পবিত্রতা অর্জন করতে হবে। শরীর পবিত্র হওয়ার বিষয়ে রাসূলুল্লাহ্ বলেন, সালাত /  নামাজ আদায়কারীর শরীর পবিত্র হওয়া। (বুখারি, হাদিস নং – ২৯৬)। পবিত্রতা অর্জন ছাড়া সালাত / নামাজ শুদ্ধ বা সহিহ হবে না। (বুখারি, হাদিস নং – ৬৪৪০)।

২) কাপড় পবিত্র হওয়া:

[…]
16Apr2022

صلاة| Conditions for Salah to be obligatory

– মোঃ মাহফুযূর রহমান

সালাত ফরজ হওয়ার শর্ত কয়টি ও কী কী?

সালাত / নামাজ ফরজ অর্থাৎ অত্যাবশকীয় হওয়ার শর্ত হল তিনটি। অর্থাৎ যতক্ষণ পর্যন্ত ৩টি শর্ত একই সঙ্গে পাওয়া যাবে না, ততক্ষণ কারও উপর নামাজ ফরজ হবে না। শর্ত তিনটি হল:

১) মুসলিম হওয়া,

২) প্রাপ্তবয়স্ক হওয়া, এবং

[…]
15Apr2022

صيام| The reason for the loss of Siam

পবিত্র কুরআনের সুরাহ আল-বাকারা’র ১৮৭ নং আয়াতে রোজা ভঙ্গের মুলনীতি উল্লেখ করেছেন:

 اُحِلَّ لَکُمۡ لَیۡلَۃَ الصِّیَامِ الرَّفَثُ اِلٰی نِسَآئِکُمۡ ؕ هُنَّ لِبَاسٌ لَّکُمۡ وَ اَنۡتُمۡ لِبَاسٌ لَّهُنَّ ؕ عَلِمَ اللّٰهُ اَنَّکُمۡ کُنۡتُمۡ تَخۡتَانُوۡنَ اَنۡفُسَکُمۡ فَتَابَ عَلَیۡکُمۡ وَ عَفَا عَنۡکُمۡ ۚ فَالۡـٰٔنَ بَاشِرُوۡهُنَّ وَ ابۡتَغُوۡا مَا کَتَبَ اللّٰهُ لَکُمۡ ۪ وَ کُلُوۡا وَ اشۡرَبُوۡا حَتّٰی یَتَبَیَّنَ لَکُمُ الۡخَیۡطُ الۡاَبۡیَضُ مِنَ الۡخَیۡطِ الۡاَسۡوَدِ مِنَ الۡفَجۡرِ۪ ثُمَّ اَتِمُّوا الصِّیَامَ اِلَی الَّیۡلِ ۚ وَ لَا تُبَاشِرُوۡهُنَّ وَ اَنۡتُمۡ عٰکِفُوۡنَ ۙ فِی الۡمَسٰجِدِ ؕ تِلۡکَ حُدُوۡدُ اللّٰهِ فَلَا تَقۡرَبُوۡهَا ؕ کَذٰلِکَ یُبَیِّنُ اللّٰهُ اٰیٰتِهٖ لِلنَّاسِ لَعَلَّهُمۡ یَتَّقُوۡن

“রোযার রাতে তোমাদের স্ত্রীদের সাথে সহবাস করা তোমাদের জন্য হালাল করা হয়েছে। তারা তোমাদের পরিচ্ছদ এবং তোমরা তাদের পরিচ্ছদ। আল্লাহ অবগত রয়েছেন যে, তোমরা আত্নপ্রতারণা করছিলে, সুতরাং তিনি তোমাদেরকে ক্ষমা করেছেন এবং তোমাদের অব্যাহতি দিয়েছেন। অতঃপর তোমরা নিজেদের স্ত্রীদের সাথে সহবাস কর এবং যা কিছু তোমাদের জন্য আল্লাহ দান করেছেন, তা আহরন কর। আর পানাহার কর যতক্ষণ না কাল রেখা থেকে ভোরের শুভ্র রেখা পরিষ্কার দেখা যায়। অতঃপর রোযা পূর্ণ কর রাত পর্যন্ত। আর যতক্ষণ তোমরা এতেকাফ অবস্থায় মসজিদে অবস্থান কর, ততক্ষণ পর্যন্ত স্ত্রীদের সাথে মিশো না। এই হলো আল্লাহ কর্তৃক বেঁধে দেয়া সীমানা। অতএব, এর কাছেও যেও না। এমনিভাবে বর্ণনা করেন আল্লাহ নিজের আয়াত সমূহ মানুষের জন্য, যাতে তারা বাঁচতে পারে।”

এ আয়াতে আল্লাহ তাআলা রোজা-নষ্টকারী প্রধান বিষয়গুলো উল্লেখ করেছেন। সেগুলো হচ্ছে- পানাহার ও সহবাস। এছাড়াও রোজা ভঙ্গের অন্যান্য যে বিষয়গুলো নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাঁর হাদিসে উল্লেখ করেছেন।

রোজা ভঙ্গের কারণসমূহ:

[…]
14Apr2022

صلاة| Its importance and virtue

– মোঃ মাহফুযূর রহমান

সালাত/নামাজ কী?

নামাজ/নামায বা সালাত বা সালাহ ইসলাম ধর্মের একটি দৈনিক নিয়মিত ইবাদত। একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে নামাজ আদায় করতে হয় যা কুরআন ও হাদিসে বর্ণিত আছে। এটি মুসলমানদের জন্য প্রতিদিন অবশ্যকরণীয় একটি ধর্মীয় কাজ। তবে প্রতিদিন আবশ্যকরণীয় বা ফরজ ছাড়াও বিবিধ নামাজ রয়েছে যা সময়ভিত্তিক বা বিষয়ভিত্তিক।

সালাত একটি সুনির্দিষ্ট প্রকৃতির ইবাদত যার পদ্ধতি ‘ইসলামী শরী‘আতে পরিপূর্ণভাবে বর্ণিত হয়েছে। নামাজ ‘তাকবিরে তাহরিমা’ দ্বারা শুরু হয় ও ‘সালাম ফিরানো’ দ্বারা শেষ হয়’।

“লিসানুল আরব” অনুযায়ী সালাত বা সালাহ (আরবি: الصلوة‎‎ আস-স্বলাহ্, আস-স্বলাত্, আরবি: ٱلصَّلَوَات‎‎ আস-সালাওয়াত, অর্থ “প্রার্থনা”, “দুআ” বা “প্রশংসা”) -এর আভিধানিক অর্থ দুআ, রহমত, ক্ষমা প্রার্থনা করা ইত্যাদি। কুরআনে ইসলামী আনুষ্ঠানিক প্রার্থনা হিসেবে সালাত শব্দটিকেই ব্যবহার করা হয়েছে। আরবি ভাষায় অন্যান্য ধর্মেও এবং ধর্মনিরপেক্ষভাবে প্রার্থনা বা উপাসনা বোঝাতে সালাত শব্দটি ব্যবহৃত হয়।

[…]
7Apr2022

Understand Quranic Word | Meaning in Bangla n English

আল-কুরআনের শব্দার্থ | বাংলা উচ্চারণ | বাংলা ও ইংরেজি অর্থ

Class-03 | Personal Pronoun (Short Form)

Personal Pronoun যখন Noun-এর সাথে পূর্বে বসে তখন সম্পূর্ণ আলাদাভাবে বসে কোনভাবেই তা যুক্ত হয় না (ক্লাস-০২ দেখুন)। কিন্তু Personal Pronoun যখন Verb-এর সাথে ব্যবহার করা হয় তখন তা যুক্ত (Attached) হয়ে যায় ফলে সংক্ষিপ্ত হয়ে Short Form ধারণ করে।

আরবী ব্যাকরণে সবচেয়ে মজার ব্যাপার হল, Personal Pronoun (Short Form) কিন্তু Tense ভেদে পার্থক্য হয় অর্থাৎ Present Tense ও Past Tense-এ ভিন্ন রূপ ধারণ করে। নীচের ছকটি ভালভাবে লক্ষ্য করুন ও মূখস্থ করে নিন।  

[…]
4Apr2022

Understand Quranic Word | Meaning in Bangla n English

আল-কুরআনের শব্দার্থ | বাংলা উচ্চারণ | বাংলা ও ইংরেজি অর্থ

Class-02 | Personal Pronoun (Full Form Used before Noun in Present Tense)

যে সকল Personal Pronoun অন্য কোন শব্দের সাথে যুক্ত না হয়ে শুধুমাত্র Noun -এর সামনে বসে, তাকে Personal Pronoun (Full Form) বলা হয়। Personal Pronoun সবসময় Noun-এর প্রথমে সংযুক্ত হয়ে Present Tense গঠন করবে।

[…]
3Apr2022

Understand Quranic Words | Meaning in Bangla n English

আল-কুরআনের শব্দার্থ | বাংলা উচ্চারণ | বাংলা ও ইংরেজি অর্থ

Class-01 | Possessive Pronoun

ভূমিকা

বিগত কিছুদিন যাবৎ আমরা মহাগ্রন্থ আল-কুরআন অর্থ অনুধাবনের জন্য প্রতিদিন কিছু কিছু শব্দ অনুশীলন করে যাচ্ছি। মুসলিম ভাই-বোনদের মধ্যে যাঁদের আমাদের মতো কুরআন জ্ঞান নেই; যারা শুধুমাত্র মূখস্থ কিছু সুরা ও দুয়া ছাড়া কুরআন অনুধাবনের সূযোগ পাননি তাদের উদ্দেশ্যে আমরা যেভাবে কুরআনের শব্দার্থ শিখছি সেগুলোই ওয়েবসাইট ও ইউটিউবে ভিডিও আকারে শেয়ার করার ক্ষুদ্র প্রয়াস মাত্র। যদি এই কনটেন্টগুলো বিন্দুমাত্রও কাজে আসে এটাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য।

‘আমরা কীভাবে কুরআনের শব্দার্থ শিখছি?’

হুবহু তা শেয়ার করার চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ। 

যেহেতু এখানে আমরা শিক্ষার্থী হিসাবে যা শিখছি হুবহু তা আপনাদের সাথেও শেয়ার করছি সেহেতু ভূল-ত্রুটি থাকা স্বাভাবিক যা নিজ গুণে মার্জনা করবেন।

তবে অবশ্যই আপনাদের মূল্যবান পরামর্শ ও উৎসাহ আশা করছি। আমাদের এই প্রচেষ্টা ধারাবাহিকভাবে অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ্।

পবিত্র কুরআনে সর্বমোট ৭৮,৮০০ টি শব্দ আছে । এর মধ্যে মাত্র ১২৫ টি শব্দ আছে যেগুলো কুরআনে ৪০,০০০ বার ব্যবহার হয়েছে অর্থাৎ কুরআনে ব্যবহৃত মোট শব্দ সংখ্যার প্রায় ৫০%। সর্বপ্রথম আমরা সেগুলোই অর্থসহ মূখস্থ করার চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ। পরবর্তীতে আরবী ভোকাবুলারী শিখতে থাকব ইনশাআল্লাহ্‌।

Class-01 | Possessive Pronoun

যে সকল Pronoun সবসময় –Noun/ Preposition-এর শেষে সংযুক্ত (Attached) থাকে, সে সকল Pronoun -কে Possessive Pronoun বলা হয়। আরবী ব্যাকরণে Possessive Pronoun সবসময় যুক্ত থাকে বলে এগুলো Attached Pronoun নামেও পরিচিত।

[…]
2Apr2022

Ramadan | The month of revelation and worship of the Holy Qur’an

রমজান | পবিত্র কোরআন নাযিল ও উপাসনা করার মাস

রমজান বা রমযান (আরবিঃ رمضان‎‎ রামাদান) হল ইসলামী বর্ষপঞ্জিকা অনুসারে নবম মাস, যে মাসে বিশ্বব্যাপী মুসলিমগণ রোজা পালন করে থাকে। রমজান মাসে রোজাপালন ইসলামের পঞ্চস্তম্ভের মধ্যে তৃতীয়তম। রমজান মাস চাঁদ দেখার উপর নির্ভর করে ২৯ অথবা ত্রিশ দিনে হয়ে থাকে যা নির্ভরযোগ্য হাদীস দ্বারা প্রমাণিত।

রমজান শব্দটি ﺭﻣﺾ শব্দ হতে নির্গত। এর অর্থ পুড়িয়ে ফেলা। রোযা রাখলে গুনাহ মাফ হয়। রমযান গুনাহকে জ্বালিয়ে পুড়িয়ে শেষ করে দেয়। তাই এর নাম রমযান। পরিভাষায় সুবহে সাদিক হতে সুর্যাস্ত পর্যন্ত পানাহার ও যৌনসম্ভোগ হতে বিরত থাকার নাম রোযা। এ মাসে প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক মুসলিম ব্যক্তির উপর সাওম পালন ফরয, কিন্তু অসুস্থ, গর্ভবতী, ডায়বেটিক রোগী, ঋতুবর্তী নারীদের ক্ষেত্রে তা শিথিল করা হয়েছে। রোজা বা সাওম হল সুবহে সাদিক থেকে সুর্যাস্ত পর্যন্ত সকল প্রকার পানাহার, পঞ্চইন্দ্রিয়ের দ্বারা গুনাহের কাজ এবং (স্বামী-স্ত্রীর ক্ষেত্রে) যৌনসংগম থেকে বিরত থাকা।

এ মাসে মুসলিমগণ অধিক ইবাদত করে থাকেন। কারণ অন্য মাসের তুলনায় এ মাসে ইবাদতের সওয়াব বহুগুণে বাড়িয়ে দেওয়া হয়। এ মাসের লাইলাতুল কদর নামক রাতে কুরআন নাযিল হয়েছিল, যে রাতকে আল্লাহ্ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা কুরআনে হাজার মাস অপেক্ষা উত্তম বলেছেন। এ রাতে ইবাদত করলে হাজার মাসের ইবাদতের থেকেও অধিক সওয়াব পাওয়া যায়। রমজান মাসের শেষদিকে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে শাওয়াল মাসের ১ তারিখে মুসলমানগণ ঈদুল-ফিতর পালন করে থাকে যেটি মুসলমানদের দুটি প্রধান ধর্মীয় উৎসবের মধ্যে একটি।

ব্যুৎপত্তি

“রমজান” শব্দটি আরবী ধাতু রামিয়া বা আর-রামম থেকে উদ্ভূত যার অর্থ “তাপমাত্রা,” বা “শুষ্কতা”। অ-আরবীয় মুসলিম দেশ যেমন ইরান, বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং তুরস্ক এটিকে “রামাজান” বা “রমজান” হিসাবে উল্লেখ করা হয়। কারণ আরবী বর্ণ “ض” তাদের বর্ণের জন্য “জ” উচ্চারণ তৈরি করে।

ইতিহাস

[…]

Ad

error: Content is protected !!