শিক্ষাক্রম, যোগ্যতা, প্রান্তিক যোগ্যতা, শ্রেণিভিত্তিক অর্জন উপযোগী যোগ্যতা, শিখনক্রম ও শিখনফল কী? - Proshikkhon

শিক্ষাক্রম, যোগ্যতা, প্রান্তিক যোগ্যতা, শ্রেণিভিত্তিক অর্জন উপযোগী যোগ্যতা, শিখনক্রম ও শিখনফল কী?

এক নজরে শিক্ষাক্রম:

শিক্ষাক্রম, যোগ্যতা, প্রান্তিক যোগ্যতা, শ্রেণিভিত্তিক অর্জন উপযোগী যোগ্যতা, শিখনক্রম ও শিখনফল সম্পর্কে নিম্নে সংক্ষিপ্ত বর্ণনা করা হলো-

শিক্ষাক্রম :

বিভিন্ন মনীষী শিক্ষাক্রমের বিভিন্ন ধরনের সংজ্ঞা দিয়েছেন৷ তবে সবশেষে বাংলাদেশের শিক্ষাবিদগণ বলেছেন যে, “কোন বিশেষ স্তরের শিক্ষা সম্পর্কিত কার্যক্রম ও অভিজ্ঞতার পূর্ণাঙ্গ দলিল যা কোন দায়িত্বশীল সংগঠন দ্বারা গৃহীত ও পরিচালিত হয়, তাকেই শিক্ষাক্রম বলে৷” শিক্ষাক্রম প্রণয়নের কতকগুলো ধাপ আছে৷ যেমন-

  • শিক্ষার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নির্ধারণ৷
  • শিক্ষার কাঠামো নির্ধারণ৷
  • পাঠ্য বিষয় ও বিষয়বস্তু নির্ধারণ৷
  • পাঠ্যসূচি নির্ধারণ৷
  • শিখন শেখানো কার্যাবলি নির্ধারণ৷
  • শিখনফল নির্ধারণ৷
  • উপকরণ নির্ধারণ৷
  • মূল্যায়ন কৌশল নির্ধারণ৷
  • পরিকল্পিত কাজ নির্ধারণ৷

যোগ্যতা :

“পঠন-পাঠনের মধ্য দিয়ে কোন জ্ঞান, দক্ষতা ও দৃষ্টিভঙ্গি পরিপূর্ণভাবে আয়ত্ত করার পর যদি শিশু বাস্তব জীবনে প্রয়োজনের সময়ে তা কাজে লাগাতে পারে তবে সেই জ্ঞান, দক্ষতা ও দৃষ্টিভঙ্গিকে তার যোগ্যতা বলা যায়৷”

উদাহরণস্বরূপ- পরিবেশ পরিচিতি বিজ্ঞান বিষয় পঠন-পাঠনের মাধ্যমে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নিয়ম-কানুন আয়ত্ত করার পর যদি শিশু স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অভ্যাস গঠন করে এবং স্বাস্থ্যসম্মত জীবনযাপনে সচেষ্ট হয়, তাহলে এই বাঞ্ছিত আচরণ বা অনুকূল দৃষ্টিভঙ্গিকে একটি যোগ্যতা হিসেবে বিবেচনা করা যাবে৷

প্রান্তিক যোগ্যতা :

“পাঁচ বছর মেয়াদি প্রাথমিক শিক্ষা শেষে শিশুরা যে যোগ্যতাগুলো অর্জন করবে বলে আশা করা যায় সেগুলোকে বলা হয় প্রাথমিক শিক্ষার প্রান্তিক যোগ্যতা৷”

সাধারণত যে কোন যোগ্যতা অর্জনের প্রক্রিয়া শুরু হয় প্রথম শ্রেণি থেকে এবং তা চলতে থাকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত৷ তবে কোন কোন প্রান্তিক যোগ্যতার বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী এর শুরু ও শেষ হওয়ার পর্যায় ভিন্নতরও হতে পারে৷ তাহলে প্রথম শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত বা শুরু থেকে শেষ হওয়ার পর্যায় পর্যন্ত অর্জিত যোগ্যতার সমষ্টিই হল প্রান্তিক যোগ্যতা৷

শ্রেণিভিত্তিক অর্জন উপযোগী যোগ্যতা :

১ম থেকে ৫ম শ্রেণি পর্যন্ত প্রতিটি শ্রেণিতে প্রান্তিক যোগ্যতা কতটুকু অর্জিত হবে তাকে বলা হয় শ্রেণিভিত্তিক অর্জন উপযোগী যোগ্যতা৷

শিখনক্রম :

“কোন একটি প্রান্তিক যোগ্যতা অর্জনের জন্য শ্রেণিভিত্তিক প্রারম্ভিক পর্যায় থেকে চূড়ান্ত পর্যায় পর্যন্ত ঐ যোগ্যতার বিভাজিত অংশের ক্রমবিন্যাসকে শিখনক্রম বলা হয়৷ ” শিখনক্রমে শুধুমাত্র যোগ্যতাসমূহ ধাপে ধাপে সন্নিবেশিত থাকে৷ প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে প্রতিটি যোগ্যতা ধাপে ধাপে অর্জন করতে হবে৷

বিষয়ভিত্তিক অর্জন উপযোগী প্রান্তিক যোগ্যতাগুলি চিহ্নিত ও সুনির্দিষ্ট করার পর পাঁচ বছর মেয়াদি প্রাথমিক শিক্ষার মাধ্যমে ১ম থেকে ৫ম শ্রেণি পর্যন্ত ধাপে ধাপে কোন শ্রেণিতে এর কতটুকু অর্জিত হবে, তা চিহ্নিত করে প্রত্যেক বিষয়ের জন্য যোগ্যতাভিত্তিক শিখনক্রম প্রণয়ন করা হয়৷  

আবশ্যকীয় শিখনক্রম :

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সকল শিশুই ১১টি বিষয়ের প্রণীত শিখনক্রমের মাধ্যমে পুরোপুরিভাবে ২৯টি প্রান্তিক যোগ্যতা অর্জনের সুযোগ পাবে৷ এ জন্য শিখনক্রমগুলোকে আবশ্যকীয় শিখনক্রম বলা হয়৷

শিখনফল :

“কোন একটি পাঠ শেষে শিক্ষার্থী কী জ্ঞান, দক্ষতা ও দৃষ্টিভঙ্গি অর্জন করবে সে সম্পর্কে পূর্ব নির্ধারিত সুস্পষ্ট ও সুনির্দিষ্ট বিবৃতি বা বাক্য হল শিখনফল৷”

শিখনফলের গুরুত্ব :

  • প্রতিটি পাঠের কিছু সুনির্দিষ্ট শিখনফল রয়েছে৷ শ্রেণিভিত্তিক যোগ্যতাকে ভিত্তি করে শিখনফল চিহ্নিত করা হয়েছে৷ পাঠের নির্ধারিত শিখনফল অর্জন করতে পারলেই শিক্ষার্থী শ্রেণিভিত্তিক অর্জন উপযোগী যোগ্যতা অর্জনে সক্ষম হবে৷
  • শিখনফলকে ভিত্তি করে লেখা হয়েছে বিষয়বস্তু৷
  • শিখন-শেখানো কার্যাবলী শিখনফলকে কেন্দ্র করে পরিচালিত করতে হবে৷ অন্যথায় যোগ্যতাভিত্তিক শিক্ষাক্রমের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য অর্জন ব্যাহত হবে৷
  • পাঠ পরিকল্পনায় অবশ্যই উপস্থাপিত পাঠটির শিখনফলসমুহ লিখতে হবে৷
  • পাঠের নির্ধারিত শিখনফলসমুহ অর্জন করানোর জন্যই শিখন-শেখানো কার্যাবলি পরিচালনা করতে হবে৷

শিখনফলের বৈশিষ্ট্য :

  • সংক্ষিপ্ত, স্পষ্ট ও সুনির্দিষ্ট হবে ৷
  • পর্যবেক্ষণযোগ্য ও পরিমাপযোগ্য হবে ৷
  • শিক্ষার্থীর আচরণের প্রত্যাশিত পরিবর্তন শিখনফলে উল্লেখ থাকে ৷
  • এক বা একাধিক শিখনফল অর্জনের মাধ্যমে পাঠের উদ্দেশ্য অর্জিত হয় ৷
  • শিখনফল জ্ঞানমূলক, দক্ষতামূলক ও দৃষ্টিভঙ্গির/মূল্যবোধের পরিবর্তনমূলক হয়ে থাকে ৷

বিজ্ঞান প্রশিক্ষণে আরও পোস্ট দেখুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!